Text size A A A
Color C C C C
পাতা

প্রকল্প

১। পরিবার সঞ্চয়পত্র

১।  প্রবর্তনঃ ২০০৯ 

২। মূল্যমানঃ ১০,০০০; ২০,০০০; ৫০,০০০; ১০০,০০০; ,০০,০০০; ,০০,০০০/=

৩। মেয়াদঃ ৫ বছর

৪। মেয়াদান্তে মুনাফাঃ  ১৩.৪৫% ( পূর্ণ মেয়াদে ) , প্রতি মাসে ১ লাখ টাকায় ১০৭০ টাকা।

৫। কোন কারণবশত মুনাফা না তুলে ভাঙ্গালে ঃ১ম বছর মেয়াদপূর্তীতে ৯.২০% (১ লাখে ৯২০০+ আসল), ৯.৯৫% (২য় বছরে ৯৯৫০+ আসল), ১০.৭০% (৩য় বছরে ১০৭০০+ আসল), ১১.৪৫% (৪র্থ বছরে ১১৪৫০+ আসল) । যদি কেউ মুনাফা তুলে ফেলেন তবে সমস্ত মুনাফা ফেরত দিতে হবে। কিন্তুবছর হিসেবে উপোরোক্ত শতকরা হার পাবেন ভর্তুকি হিসেবে।

৬। যারা ক্রয় করতে পারবেনঃ ১৮ ও তদুর্ধ্ব বয়সের যে কোন  বাংলাদেশী মহিলা, যে কোন বাংলাদেশী শারীরিক প্রতিবন্ধী ( পুরুষ ও মহিলা ) এবং ৬৫ বা তদুর্ধ্ব বাংলাদেশী পুরুষ ও মহিলা নাগরিক।

৭। ক্রয়ের উর্দ্ধসীমাঃ  একক নামে ৪৫ লক্ষ। এই ক্ষেত্রে আপনাকে ৫ লক্ষ টাকা মূল্যমানের ৯টি সঞ্চয়পত্র দেয়া হবে।

  

৮। এই প্রকল্পের নাগরিক সুবিধাদি

(ক) মাস ভিত্তিক মুনাফা প্রদেয়

(খ) নমিনী নিয়োগ করা যায় ( ২জন )। একজন হলে ১০০%, ২ জন হলে ৫০+৫০% (গ) হারিয়ে গেলে পুড়ে গেলে বা নষ্ট হলে ডুপ্লিকেট ইস্যু করা যায়।

() স্থানান্তর সুবিধা পাবেন।

() অথরিটি সুবিধা পাবেন।

 

৯। ইচ্ছে করলে মেয়াদী হিসাব খোলা যাবেএক্ষেত্রে মুনাফা প্রদেয় হবে না

 

২। ৩ মাস অন্তর মুনাফাভিত্তিক সঞ্চয়পত্র

Ø  প্রবর্তন     ঃ ২০০৯

Ø  মূল্যমান    ঃ ১০০,০০০; ,০০,০০০; ,০০,০০০/=

Ø  মেয়াদ     ঃ ৩ বছর

Ø  মেয়াদান্তে মুনাফা ঃ১২.৫৯% ( পূর্ণ মেয়াদে )প্রতি তিন মাসে মুনাফা নেয়া যায়। নমিনি কর্তৃক ও মুনাফা প্রদেয়। তবে কোন ক্ষেত্রে সম্ভব না হলে ফোনে যোগাযোগের মাধ্যমে মনোনীত ব্যক্তি কর্তৃক মুনাফা নেয়া যাবে। ক্রয়ের তারিখ থেকে ৩ মাস পর ১ লক্ষ টাকায় ৩০০০/= টাকা

Ø  কোন কারণবশত ভাঙ্গালে ঃ ১ম বছর মেয়াদপূর্তীতে ৯.৮০% (১ লাখে ৯৮০০+ আসল) , ১০.৮০% ( ২য় বছরে ১০৮০০+ আসল) । যদি কেউ মুনাফা তুলে ফেলেন তবে সমস্ত মুনাফা ফেরত দিতে হবে। কিন্তুবছর হিসেবে উপোরোক্ত শতকরা হারও পাবেন ভর্তুকি হিসেবে।

Ø  যারা ক্রয় করতে পারবেন ঃসকল শ্রেণী ও পেশার বাংলাদেশী নাগরিক।

Ø  ক্রয়ের উর্দ্ধসীমা  ঃএকক নামে ৩০ লক্ষ। এই ক্ষেত্রে আপনাকে ৫ লক্ষ টাকা মূল্যমানের ৬টি সঞ্চয়পত্র দেয়া হবে। যুগ্ম নামে ৬০ লক্ষ ।

Ø  এই প্রকল্পের নাগরিক সুবিধাদি

(ক)সবচেয়ে লাভজ্বনক ও সুবিধাজ্বনক।

(খ) নমিনী নিয়োগ করা যায় (২জন)একজন হলে ১০০%, ২ জন হলে ৫০+৫০%

(গ) হারিয়ে গেলে পুড়ে গেলে বা নষ্ট হলে ডুপ্লিকেট ইস্যু করা যায়।

(ঘ) স্থানাস্তর সুবিধা পাবেন।

(ঙ) অথরিটি সুবিধা পাবেন।

() যুগ্ম নামে কেনা সবচেয়ে ভাল বলে সুপারিশ করা হয়। 

 

 

/৫ বছর মেয়াদী বাংলাদেশ সঞ্চয়পত্র

Ø  প্রবর্তনঃ       ১৯৭৭

Ø  মূল্যমানঃ     ১০/২০/৫০/১০০ টাকা, ৫/১০/২৫/৫০ হাজার, ১০০০০০/=

Ø  মেয়াদঃ        ৫ বছর

Ø  মেয়াদান্তে মুনাফাঃ   ১৩.১৯% ( পূর্ণ মেয়াদে )

Ø  ক্রয়ের তারিখ থেকে ৫ বছর পর ৫০০০ টাকায় ৩১৪৫ টাকা১০,০০০ টাকায় ৬২৯০ টাকা, ২৫০০০ টাকায় ১৫৭২৫ টাকা, ৫০,০০০ টাকায় ৩১৪৫০ টাকা, ১ লক্ষ টাকায় ৬২৯০০ টাকা, ৫০০০০০ টাকায় ৩১৪৫০০ টাকা, ১০,০০,০০০ টাকায় ৬২৯০০০ টাকা। 

Ø  কোন কারণবশত মুনাফা না তুলে ভাঙ্গালে ঃ ১ম বছর মেয়াদপূর্তীতে ৯.২০% (১ লাখে ৯২০০+ আসল ) , ৯.৯৫% ( ২য় বছরে ৯৯৫০+ আসল), ১০.৭০% ( ৩য় বছরে ১০৭০০+ আসল), ১১.৪৫% ( ৪র্থ বছরে ১১৪৫০+ আসল) ।

Ø  যারা ক্রয় করতে পারবেন

(ক) সকল শ্রেণী ও পেশার বাংলাদেশী নাগরিক।

(খ) আয়কর বিধিমালা-১৯৮৪ ( অংশ-২) এর বিধি ৪৯ এর উপ-বিধি (২) এ সংজ্ঞায়িত স্বীকৃত ভবিষ্য তহবিল এবং ভবিষ্য তহবিল আইন, ১৯২৫(১৯২৫ এর  ১৯ নং) অনুযায়ী  পরিচালিত ভবিষ্য তহবিল।

(গ) আয়কর অধ্যাদেশ ১৯৮৪ এর ৬ষ্ঠ তফসিল এর পার্ট এ অনুচ্ছেদ৩৪ অনুযায়ী মৎস্য খামার, হাঁস-মুরগির খামার, পেলিটেড পোল্টি ফিডস খামার, বীজ উৎপাদন, গবাদি পশুর খামার, দুগ্ধ ও দুগ্ধজাত দ্রব্যের খামার, ব্যাঙ উৎপাদন খামার, উদ্যান খামার প্রকল্প, রেশমগুটি পালনের খামার, ছত্রাকউৎপাদন এবং  ফল ও লতাপাতার চাষ হতে অর্জিত আয়- যা সংশ্লিষ্ট উপ-কর কমিশনার কর্তৃক প্রত্যায়নকৃত।

(ঘ) নাবালকের পক্ষেও ক্রয় করা যায়।

Ø  ক্রয়ের উর্দ্ধসীমা  ঃএকক নামে ৩০ লক্ষ। এই ক্ষেত্রে আপনাকে ৫ লক্ষ টাকা মূল্যমানের ৬টি সঞ্চয়পত্র দেয়া হবে। যুগ্ম নামে ৬০ লক্ষ ।

Ø  এই প্রকল্পের নাগরিক সুবিধাদি

(ক) এক মেয়াদের জন্য স্বয়ংক্রিয়ভাবে পুনঃবিনিয়োগ সুবিধা  বিদ্যমান।

(খ) নমিনী নিয়োগ, পরিবর্ত/ বাতিল করা যায় ( ২জন )।

(গ) হারিয়ে গেলে পুড়ে গেলে বা নষ্ট হলে ডুপ্লিকেট ইস্যু করা যায়।

() স্থানান্তরসুবিধা পাবেন

() এই প্রকল্পকে প্রাইজবন্ডের মতো করে কিনতে পারেন সুবিধাজ্বনক দামেআবার মাসিক ডিপোজিট হিসেবে কিনতে পারেনকারণ প্রতি মাসে ক্রয়ের তারিখ থেকে ৫ বছর মেয়াদ হিসেবে আপনার নিকট সম্পদ হিসেবে থাকবেসর্বশেষে ক্রয়কৃত সঞ্চয়পত্র এর ৫ বছর মেয়াদ পূর্ণ হলে দেখবেন পূর্বের কেনা সঞ্চয়পত্র গুলো অটোরিনিউ হয়ে মুনাফা দ্বিগুণ বা তিনগুণ হয়ে গেছেযা আপনার পরিবারের একটি বড় জীবণবীমা হয়ে গেছেলটারি/প্রাইজবন্ডে লটারি না লাগলে বছরে তা খেকে কোন মুনাফা না আসলেও এখান থেকে ঠিকই মুনাফা পাবেননিশ্চিত নিরাপদ ভবিষ্যত

 

৫ হাজার টাকায় যেভাবে মুনাফা পাবেন ( ৩২৯৭.৫০ – ১৫২.৫০= ৩১৪৫)

৫২.৪২ টাকা (প্রতি মাসে)* ১২= ৬২৯ টাকা (১ বছরে) * ৫= ৩১৪৫ টাকা

বা 12.20%+0.99(social security)=13.19%-5%=12.58%

 

৪। পেনশনার সঞ্চয়পত্র প্রবর্তন  ঃ ২০০৪

১।  মূল্যমানঃ     ৫০,০০০/=, ১০০০০০/=, ২০০০০০/=, ৫০০০০০/=

২।  মেয়াদঃ     ৫ বছরমেয়াদান্তে মুনাফাঃ ১৩.১৯% ( পূর্ণ মেয়াদে )

৩।  ক্রয়ের তারিখ থেকে ৩ মাস পর ১ লক্ষ টাকায় ৩২৯৭.৫০/= টাকানতুন পুরাতন গ্রাহক সবাই ৫ লক্ষ টাকা পর্যন্ত ট্যাক্স ফ্রি সুবিধা পাবেন।

৪।  কোন কারণবশত ভাঙ্গালেঃ    ১ম বছর মেয়াদপূর্তীতে ৯.২০% (১ লাখে ৯২০০+ আসল ) , ৯.৯৫% ( ২য় বছরে ৯৯৫০+ আসল), ১০.৭০% ( ৩য় বছরে ১০৭০০+ আসল), ১১.৪৫% ( ৪র্থ বছরে ১১৪৫০+ আসল) । যদি কেউ মুনাফা তুলে ফেলেন তবে সমস্ত মুনাফা ফেরত দিতে হবে। কিন্তু  বছর হিসেবে উপোরোক্ত শতকরা হার পাবেন ভর্তুকি হিসেবে।

৫। যারা ক্রয় করতে পারবেনঃ

() অবসরপ্রাপ্ত সরকারী, আধা-সরকারী, স্বায়ত্বশাষিত, আধা-স্বায়ত্বশাষিতপ্রতিষ্ঠানের কর্মকর্তা-কর্মচারী, সুপ্রিম কোর্টের অবসরপ্রাপ্ত মাননীয় বিচারপতিগণ

৫। ক্রয়ের উর্দ্ধসীমা  ঃএকক নামে ৩০ লক্ষ। এই ক্ষেত্রে আপনাকে ৫ লক্ষ টাকা মূল্যমানের ৬টি সঞ্চয়পত্র দেয়া হবে। যুগ্ম নামে ৬০ লক্ষ ।

৬। এই প্রকল্পের নাগরিক সুবিধাদি

(ক) এক মেয়াদের জন্য স্বয়ংক্রিয়ভাবে পুনঃবিনিয়োগ সুবিধা  বিদ্যমান।

(খ) নমিনী নিয়োগ, পরিবর্ত/ বাতিল করা যায় ( ২জন )।

(গ) হারিয়ে গেলে পুড়ে গেলে বা নষ্ট হলে ডুপ্লিকেট ইস্যু করা যায়।

()স্থানান্তর সুবিধা পাবেন।